হোয়াটসঅ্যাপ-এ আসছে ভয়েস কলিং সুবিধা

হোয়াটসঅ্যাপ

হোয়াটসঅ্যাপ এই মুহূর্তে মেসেজিং জগতে সর্বাধিক জনপ্রিয় সেবা। নামমাত্র ডেটা ব্যবহার করার ফলে এবং বেশ কয়েকটি ক্যারিয়ারে পুরো বিনামূল্যে ব্যবহার করা যায় বলে অনেকের ক্ষেত্রেই এসএমএস-এর বিকল্প হয়ে দাঁড়িয়েছে এই হোয়াটসঅ্যাপ। কিন্তু সর্বাধিক জনপ্রিয় মানেই যে ফিচারের দিক দিয়েও সবার চেয়ে এগিয়ে, তেমনটা কিন্তু না। প্রতিদ্বন্দ্বী মেসেজিং সেবা যেমন উইচ্যাট, লাইন ও ভাইবারের রয়েছে একটি বিশেষ সুবিধা যা হোয়াটসঅ্যাপের নেই। আর তা হলো ভয়েস কলিং।

ভয়েস কলিং-এর ক্ষেত্রে স্কাইপের জনপ্রিয়তা ও ব্যবহার সবচেয়ে বেশি থাকলেও ইদানীং ভয়েস কলে ভাইবারের ব্যবহার দেখা যাচ্ছে। এই চল খেয়াল করেছে হোয়াটসঅ্যাপও, যে কারণে গত ফেব্রুয়ারি তারাও তাদের সেবায় ভয়েস কলিং সুবিধা নিয়ে আসার ঘোষণা দেয়। কিন্তু ওই পর্যন্তই! এখন পর্যন্ত ভয়েস কলের দেখা মেলেনি হোয়াটসঅ্যাপে।

(আরও পড়ুন: হোয়াটসঅ্যাপ ওয়েব)

তবে এবার ফাঁস হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপের ভিডিও কল সংক্রান্ত একটি স্ক্রিনশট। মোট তিনটি স্ক্রিনশটে দেখা গেছে প্রত্যেক কন্টাক্ট প্রোফাইলে আলাদা কল লগ, ইনকামিং ভয়েস কল এবং কল ইন প্রগ্রেস।

হোয়াটসঅ্যাপ ভয়েস কল

হোয়াটসঅ্যাপ সিইও গত অক্টোবরে জানান, কারিগরি কিছু সমস্যার কারণে হোয়াটসঅ্যাপ ডেভেলপার টিম এখনও পর্যন্ত ভয়েস কল সুবিধাটি সবার জন্য প্রস্তুত করে তুলতে পারেনি। ২০১৫-এর প্রথম দিকেই সুবিধাটি হোয়াটসঅ্যাপে চালু করা হবে বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

নতুন বছর শুরুর ঠিক আগ মুহূর্তে হোয়াটসঅ্যাপ ভয়েস কলিং-এর এই স্ক্রিনশটই অনেকটা নিশ্চিত করে যে, হোয়াটসঅ্যাপ এই সেবাটি পরীক্ষা করে দেখছে। তবে হোয়াটসঅ্যাপ এই স্ক্রিনশট সম্পর্কে কিছু জানায়নি বা নতুন করে ভয়েস কল সুবিধাটি কবে নাগাদ মুক্তি পেতে পারে এ ব্যাপারে কিছু বলেনি। তাই ফাঁস হওয়া এই স্ক্রিনশটই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে ভয়েস কল করতে চান যারা তাদের একমাত্র ইঙ্গিত যে আসলেই ফিচারটি চালু হতে যাচ্ছে।

বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি অপারেটর বিনামূল্যে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা দিয়ে থাকে, যার ফলে এর জনপ্রিয়তা আরও বেশি। তবে এই ভয়েস কল সুবিধা চালু হলে অপারেটরগুলো সেটাও বিনামূল্যে দেবে কি না সেটাই এখন দেখার বিষয়!

হোয়াটসঅ্যাপ ভয়েস সেবা চালু হলে উপকৃত হবেন কি?

  • kothon

    goto bochor theka suntesi…. kobe asbe ke jane…